রাউজানে বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৩ কেজি ১০ টাকায়!

০৯ মার্চ, ২০১৯   |   thepeoplesnews24

ছবি নিজস্ব


অামির হামজা, রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:
চট্টগ্রামের রাউজান ফটিকছড়ির উপর দিয়ে প্রবাহিত সর্তা খালের পানিতে খালের দুই পাড়ে ব্যাপক হারে সবজি চাষ হয়। হরেক রকম সবজির মধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে দেশীও বেগুন। এখানে যেই জাতে বেগুন উৎপাদন হয় সেই জাতটির স্থানীয়দের কাছে পরিচয় হচ্ছে রাউজানের ডাবুয়ার বায়ুন হিসাবে। শীতের শুরু যখন বেগুনটি বাজারে আসে তখন কেজি প্রতি দাম থাকে এক’শ থেকে একশ বিশ টাকা পর্যন্ত। এলাকার মানুষের আগ্রহের বিবেচনায় সবজি চাষীরা প্রতিবছর এই শ্রেণির বেগুন চাষে বেশি আগ্রহী থাকে। এবছরও চাষিরা খালের দুই পাড়ে শত শত একর জমিতে বেগুনের চাষ করেছে। ফলন ভাল হওয়ায় এবার সর্বশেষ পর্যায়ে এসে তারা ১০ টাকায় তিন কেজি বেগুন বিক্রি করতে হচ্ছে। এখানকার কৃষিজীবিরা বলেছেন বাপ দাদার দেখানো পথে তারা সবজি চাষে আছেন। সবজি ফলাতে গিয়ে নিজেদের হাঁড় ভাঙ্গা পরিশ্রম করার পাশাপাশি ক্ষেতের কাজে কামলা নিয়োগ করতে হচ্ছে।

এই অবস্থার মধ্যে পড়ে প্রতিজন কামলাকে দৈনিক ছয় থেকে সাত শত টাকা পর্যন্ত বেতন দিতে হচ্ছে। এছাড়া সার,বীজসহ রোগ বলাইয়ের ঔষধ দিতে গিয়ে বহু টাকা খরচ করতে হচ্ছে। সেই হিসাব করলে সবজি ক্ষেতে তেমন লাভ হয় না। মৌসুমের প্রথম পর্যায়ে ফলন পাওয়া গেলেই লোকসান কিছুটা কেটে উঠা সম্ভব হয়। স্থানীয় সাজেদা কবির চৌধুরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সাভাপতি মাওলানা দিদারুল আলম বলেন কৃষিজীবিরা তাদের উৎপাদিত ফসল দ্রুত বাজারজাত করতে না পারার কারণে অনেক সবজি পথেঘাটে নষ্ট হয়। অনেক চাষী তাদের সবজি নিয়ে আসা যাওয়া করতে হয় সর্তার খালের পানি সাঁতরিয়ে।

খালের উপর হচ্ছারঘাট একটি ব্রিজ করার উদ্যোগ নিয়েছেন রাউজানের সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী। ব্রিজটি নির্মিত হলে সবজি চাষীরা লোকসান থেকে মুক্তি পেয়ে লাভের মুখ দেখবে। স্থানীয় কৃষিজীবিদের মধ্যে নুর মুহাম্মদ, ইউপি সদস্য নঈম উদ্দিন, হাছান মুরাদ রাজু, আক্তার হোসেন, রনি, হারুন,সেলিম,শাহাবউদ্দীন একই অভিমত ব্যক্ত করে বলেন হচ্ছারঘাট এলাকায় ব্রিজটি নির্মাণ করা হলে সর্তার পানিতে খালের দুপাড়ে উৎপাদিত মৌসুমী সবজি দ্রুত বাজারজাত করা যাবে। মানুষ পাবে টাটকা কিটনাশকমুক্ত সবজি। এই এলাকার সবজি স্থানীয় ভাবে চাহিদা পুরণ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ দেয়া যাবে।






নামাজের সময়সূচি

শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল, ২০১৯
ফজর ৪:২৬
জোহর ১১:৫৬
আসর ৪:৪১
মাগরিব ৬:০৯
ইশা ৭:২০
সূর্যাস্ত : ৬:০৯সূর্যোদয় : ৫:৪৩