1. admin@thepeoplesnews24.com : admin :
  2. shohel.jugantor@gmail.com : alamin hosen : alamin hosen
বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে কাজিপুরে মানববন্ধন নির্বাচনী ব্যবস্থা প্রবর্তনে এবি পার্টির গোল টেবিল আলোচনা জ্বালানি তেলের দাম নির্ধারণ করতে হাইকোর্টের রুল বেলকুচিতে ভোট শেষে ভবনের পিছনে পাওয়া গেলো সিল মারা ব্যালট ও রেজাল্ট সিট সাবেক যুবলীগ নেতা খলিলুল্লাহ আজাদ মিল্টনের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড় কমিউনিটি ক্লিনিকে সপ্তাহে ২দিনে ১হাজার জনসাধারণ পাচ্ছেন কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন রফিকুল ইসলামের মৃত্যুতে জাতি গর্বিত সন্তানকে হারালো : বাংলাদেশ ন্যাপ গণতন্ত্রের জন্য গণমাধ্যম অনস্বীকার্য : স্পিকার কাল থেকে পলিথিনমুক্ত হচ্ছে চট্টগ্রামের তিন কাঁচাবাজার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৭ বাড়িতে টাঙানো হবে লাল পতাকা

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থী-ভিসির বৈঠক,২৮ নভেম্বর পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ৩৮ বার দেখা হয়েছে


১৪ শিক্ষার্থীর চুল কর্তনের ঘটনায় শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের স্থায়ী বহিস্কারের দাবীতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) সাথে সমঝোতা বৈঠক হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনে দেড় ঘন্টাব্যাপী এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসিমন বাতেনের বিরুদ্ধে আগামী ২৮নভেম্বর মধ্যে বহিস্কারের চুড়ান্ত সিদ্ধান্তের আশ্বাস দেয়ায় শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করেছে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র আবু জাফর জানান, চুল কর্তনের ঘটনায় সিন্ডিকেট সভায় কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই বৈঠক মুলতবি করায় গত চারদিন ধরে তারা পুনরায় আন্দোলনে নেমেছিলেন। মঙ্গলবার বিকেলে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ শামসুজ্জোহার মধ্যস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি মো. আব্দুল লতিফের সাথে শিক্ষার্থীদের বৈঠক হয়। বৈঠকে দীর্ঘ আলোচনা শেসে ভিসি মহোদয় তদন্ত প্রতিবেদনে ঘটনার সত্যতা পেয়েছে স্বীকার করেন এবং স্থায়ী বহিস্কারের বিষয়ে কোন আইন না থাকায় বহিস্কার করতে পারছেন না বলে জানান। এরপর আগামী ২৮ নভেম্বরের মধ্যে নতুন আইন প্রণয়ন করে শিক্ষিকা ফারহানাকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নিবেন বলে ঘোষনা দেন। ভিসির আশ্বাসে তারা আন্দোলন স্থগিত করেন।

তবে (আজ) বুধবার বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন গঠিত তদন্ত কমিটি শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিনের চুল কর্তনের ঘটনায় তদন্ত করতে আসছেন। তদন্ত কমিটিতে সাক্ষ্য শেষে আন্দোলন শিক্ষার্থীরা বৈঠক করে কবে থেকে ক্লাস ও পরীক্ষায় ফিরবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত ভিসি মো. আব্দুল লতিফ জানান, শিক্ষার্থীদের সাথে সফল সমঝোতা বৈঠক হয়েছে। আগামী ২৮ নভেম্বরের মধ্যে তাদের দাবীর বিষয়টির চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেয়া হবে। দু -একদিনের মধ্যেই শিক্ষার্থীরা ক্লাস ও পরীক্ষায় ফিরবেন। শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো তদন্ত প্রতিবেদনে প্রাথমিকভাবে সত্যতা প্রমানিত হয়েছে কিন্তু একজন শিক্ষিকাকে স্থায়ী বহিস্কারের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট আইন না থাকায় কোন সিদ্ধান্ত নেয়া যাচ্ছে না। ২৮ নভেম্বরের মধ্যে আলোচনা-পর্যালোচনা ও উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করে আইন প্রণয়ণ করে ফারহানার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


প্রসঙ্গত, গত ২৬ সেপ্টেম্বর রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা ইয়াসমিন বাতেন নিজেই কাঁচি হাতে ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেন বলে অভিযোগে ওঠে। সেই শিক্ষার্থীদের একজন ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিলে তাকে বকাঝকা করায় আত্মহত্যার চেষ্টা করলে ক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে বিশ্ববিদ্যালয়। এরপর ৩০ সেপ্টেম্বর রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় ফারহানা ইয়াসমিনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। এ পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে। তদন্ত কমিটিতে শিক্ষিকা ফারহানা ইয়াসমিন আত্মপক্ষ সমর্থন দিয়ে বক্তব্য প্রদান করায় তদন্ত কমিটি গত বৃহস্পতিবার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন। তদন্ত প্রতিবেদন পাবার পর রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় শুক্রবার ঢাকা রবিন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু সভায় কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই মুলতবি ঘোষনা করা হয়। এরপর থেকেই শিক্ষার্থীরা ফের আন্দোলনে নামেন।

দয়া করে এই পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
©২০১৫ ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Customized BY Limon Kabir