আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বেলকুচিতে শীলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা পেল ৬৩ লাখ টাকা প্রণোদনা

খবরটি নিচের যেকোন মাধ্যমে শেয়ার করুন

রফিক মোল্লা-
সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার ধুকুরিয়াবেড়া ও দৌলতপুর ইউনিয়নে শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্থ ২৫২৮ জন কৃষক প্রায় ৬৩ লাখ টাকা সরকারী প্রণোদনা পেয়েছে। ঈদের আগে প্রতিটি ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক তাদের মোবাইল হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপরহার হিসেবে ২৫০০ টাকা পেয়ে খুশি।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, ১১ এপ্রিল সন্ধ্যার দিকে হঠাৎ করে ঝড়ো হাওয়া ও শিলা বৃষ্টিতে বেলকুচি উপজেলার ধুকুরিয়াবেড়া ও দৌলতপুর ইউনিয়নের ১৮৯৭ হেক্টর জমির প্রায় ২২ কোটি টাকা মুল্যের বোরো ধান, পাট, তিল ও সবজির ক্ষতি হয়েছে। এ নিয়ে পরের দিন যুগান্তরে সচিত্র সংবাদ প্রকাশ হয়। ১৭ এপ্রিল ক্ষতিগ্রস্থ ফসলের ক্ষেত পরিদর্শন করে অসহায় কৃষকদের সহায়তার আশ্বাস দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ আব্দুল মমিন মন্ডল।

এসময় উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কল্যাণ প্রসাদ পাল, ধুকুরিয়া বেড়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি খোরশেদ আলম ও সাধারন সম্পাদক আবুশামা উপস্থিত ছিলেন। পরে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাঠকর্মীরা এলাকা ঘুরে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের নামের তালিকা করে কৃষি মন্ত্রনালয়ে প্রেরণ করেন। পরে স্থানীয় সংসদ সদস্য আবদুল মমিন মন্ডলের প্রচেষ্টায় প্রধানমন্ত্রী ও কৃষি মন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের দুর্দশরা কথা চিন্তা করে তাদের প্রণোদনা ঘোষনা করেন। ঈদের আগেই এসব কৃষকদের মোবাইল হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার হিসেবে দুই হাজার ৫০০ টাকা পেয়েছে। এ সহায়তার আওতায় ধুকুরিয়া বেড়া ইউনিয়নের ১৫৮৫জন ও দৌলতপুর ইউনিয়নের ৯৪৩জন কৃষক রয়েছেন।

এবিষয়ে দৌলতপুরের কৃষক খাইরুল ইসলাম জানান, শিলা বৃষ্টিতে আমাগোরে ধানি জমি নষ্ট অইছে খবর হুইনা এমপি সাহেব আইছিল। হে দিন আমাগোরে কইছিল ট্যাহা দিবো। হেই টেহ্যা ঈদের আগেই মোবাইলে পাইছি, আমরা পোলাপান নিয়ে ভাল ভাবে ঈদ করছি। এজন্য প্রধানমন্ত্রী, কৃষি মন্ত্রী ও আমাগোরে এমপির প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।

এবিষয়ে বেলকুচি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কল্যাণ প্রসাদ পাল জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগস্থ ২৫২৮ জন কৃষককে ২৫০০ করে টাকা প্রণোদনা প্রদান করা হয়েছে। বেলকুচির ইতিহাসে এটাই প্রথম। স্থানীয় সংসদ সদস্যের আন্তরিক প্রচেষ্টার কারনে এটা সম্ভব হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ আব্দুল মমিন মন্ডল জানান, কৃষি সহ সকল স্তরে উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তার নির্দেশে ও কৃষি মন্ত্রীর প্রচেষ্টায় বেলকুচির ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা সহায়তা পেয়েছেন। কৃষি বিভাগ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সমন্বয়ে এরকম উদ্যোগ ভবিষ্যতে বেলকুচির কৃষি কে আরও উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আর নিউজ দেখুন