আজ ২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

‘রংবাজি দ্য লাফাঙ্গা’ ছবিতে সমাজকে অশ্লীলবার্তা!

খবরটি নিচের যেকোন মাধ্যমে শেয়ার করুন

বিনোদন প্রতিনিধি :
চলচ্চিত্রের বাজারের সংকট উত্তরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিচ্ছেন একের পর এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ। তার এ পদক্ষেপের কারণে স্বপ্ন দেখছে চলচ্চিত্রপাড়া ঘুড়ে দাঁড়ানোর। তবে এর বিপরীত চিত্রও রয়েছে ইন্ডাস্ট্রিতে। প্রধানমন্ত্রীর পদক্ষেপগুলোকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে প্রতিক্রিয়াশীল গোষ্ঠী একের পর এক নেতিবাচক কাজ করছেন যা সমাজকে অশ্লীলবার্তা দিচ্ছে। এমন এক চিত্র পাওয়া গেল করোনা সংকটকালে সিনেমা হল খোলার পর। প্রথমত মুক্তিপ্রাপ্ত ‘সাহসী হিরো আলম’ নামক নিম্নরুচির সিনেমা, দ্বিতীয়ত আগামীকাল (৫ ফেব্রুয়ারি) কমল সরকার পরিচালিত ‘রংবাজি দ্য লাফাঙ্গা’ মুক্তির ঘোষণা। ইতোমধ্যে ছবিটির ৩ মিনিট ২৬ সেকেন্ডের ট্রেলার ইউটিউবে ঘুরছে। অশ্লীল, কুরুচিপূর্ণ ট্রেলারটি লাইক, কমেন্টের চেয়ে ডিসলাইক এর সংখ্যা বেশি। ডিসলাইকের সংখ্যা দেখেই বোঝা যাচ্ছে বিরূপ প্রতিক্রিয়াকারীদের মন্তব্য কেমন হবে?

নজরুল ইসলাম নামের এক সোসাল অ্যাক্টিভিস্ট লিখেছেন- অমিত হাসান কাজি (কাজী) হায়াতের মত অভিনেতা যদি এমন মুভিতে কাজ করে তাহলে ভেবে নিবেন বাংলা সিনেমার ভবিষ্যত অন্ধকার। আকিব নামের এক সোসাল অ্যাক্টিভিস্ট ছবির নায়ককে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন- কে এই বুড়ো যে প্রথম বার পর্দায় এসেই বাংলা সিনেমার পিছন মেরে দিচ্ছে?

তবে গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য করেছেন চিত্রনাট্যকার আব্দুল্লাহ জহির বাবু। তিনি লিখেছেন- উচ্চারণ! উচ্চারণ! বাংলা ভাষা বলাটা যতটা সহজ ভাবি আমরা ততটা সহজ নয়…। অর্থাৎ ছবিতে প্রায় প্রতিটি সংলাপে উচ্চারণে জগাখিচুরি অবস্থা। অশ্লীল দৃশ্যের মতোই সংলাপ উচ্চারণে ভয়াবহ ত্রুটিকেই ইঙ্গিত করেছন বাবু।
ইতিমধ্যে ট্রেলার মুক্তি পেয়ে ইউটিউবে ঘুরলেও এ ইস্যুতে কুটনৈতিক অবস্থানে সেন্সরবোর্ড। বোর্ডের অনুমতি ছাড়াই ট্রেলারটি মুক্তি দেওয়া হয়েছে। সেন্সর বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন বলেন, প্রযোজনা সংস্থা ট্রেলার চালানোর অনুমতি নেয় নি, অনেক পরে এ তথ্য আমরা পেয়েছি। পেয়েই তাদেরকে নোটিশ করেছি। এরমধ্যে যদি তারা ট্রেলারটি সরিয়ে না নেয় তবে অবশ্যই তাদের ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। নোটিশ পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন ছবিটির নির্বাহী প্রযোজক মো. হিমেল। নোটিশ করার কারণে হিসেবে সেন্সর বোর্ডের অনুমতি ছাড়া ইউটিউবে মুক্তির কথা উল্লেখ থাকলেও ট্রেলারে অশ্লীল কুরুচিপূর্ণ দৃশ্যে ভয়াবহ উপস্থিতি রয়েছে, যা অজ্ঞাত কারণে সেন্সরবোর্ড এড়িয়ে যাচ্ছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সুস্থ বাণিজ্যিক ধারার প্রযোজক জানিয়েছেন।

অপরদিকে ট্রেলারে কোনো অশ্লীল কুরুচিপূর্ণ দৃশ্য নেই- দাবি করে ছবিটির প্রযোজক ইফসুফ রনি। এটাকে সময় উপযোগী অ্যাকশনধর্মী ছবি। দর্শক টানতে এমন ছবির বিকল্প নেই এমন কথা উল্লেখ করে তিনি এক পর্যায় ‘প্রধানমন্ত্রীর খুব কাছের লোক’ বলেও নিজেকে পরিচয় দেন। এদিকে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে সদ্য বিলুপ্ত হওয়া প্রযোজক সমিতির সভাপতি ও সেন্সরবোর্ডের সদস্য খোরশেদ আলম খসরুর টিওটি ফিল্মস থেকে। এতে প্রশ্ন উঠেছে ছবিটির সেন্সর সার্টিফিকেট পাওয়া নিয়েও।

প্রদর্শক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আওলাদ হোসেন উজ্জল বলেছেন, ট্রেলারটি দেখেছি সত্যি কথা বলতে এমন ছবিগুলো কিভাবে সেন্সর সার্টিফিকেট পায় তা আমার বোধগম্য নয়, হল মালিক হিসেবে এখানে আমাদের খুব বেশি কিছু করার নেই তবে এ কথা সত্য এমন ছবি হলে মুক্তি পেলে দর্শক বাড়বে না বরং আরও কমবে। প্রযোজক সমিতিকে যারা নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাদের কাছে অনুরোধ করব আরও সতর্ক হতে। পাশাপাশি হল মালিক হিসেবে সামনের ইসি মিটিংয়ে এ নিয়ে আলোচনা করবো।

প্রিন্স মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত ‘রংবাজি দ্য লাফাঙ্গা’র কাহিনী, চিত্রনাট্য, সংলাপ রচনা করেছেন কমল সরকার। এতে অভিনয় করেছেন বিন্দিয়া, ইউসুফ রনি, অমিত হাসান, কাজী হায়াৎ, সুব্রত, কোবরা, নাসরিন, জ্যোতি, শামীম খান, গুলজার খান প্রমুখ। আগামীকাল দেশের ৩৭টি সিনেমা হলে ছবিটি মুক্তির ক্ষণ গুণছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আর নিউজ দেখুন