আজ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

করোনাকালীন সময়ে গার্মেন্টস শ্রমিকদের ২০% ঝুঁকিভাতা প্রদানের দাবি

খবরটি নিচের যেকোন মাধ্যমে শেয়ার করুন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনাকালীন সময়ে কাজ অব্যাহত রাখায় গার্মেন্টস শ্রমিকদের ২০% ঝুঁকিভাতা প্রদানের দাবি জানিয়েছে জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন। একই সাথে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বাৎসরিক ৫% ইনক্রিমেন্ট বন্ধে বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ’র প্রস্তাব বাতিলের দাবি জানায় সংগঠনটি।

আজ ১৩ জানুয়ারি ২০২১ বুধবার শ্রম ও কর্মসংস্থান সচিব বরাবরে প্রেরিত একটি পত্রের মাধ্যমে এ দাবি জানায় সংগঠনটি।

এতে সংগঠনের সভাপতি মোঃ বাহারানে সুলতান বাহার বলেন, “বৈশ্বিক অর্থনীতি করোনা ভাইরাসের কারণে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমাদের অর্থনীতিতেও করোনা ভাইরাসের প্রভাব পড়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সময়োপযোগী সঠিক সিদ্ধান্তের ফলে আমরা অর্থনৈতিকভাবে ততটা ক্ষতিগ্রস্ত হইনি। আপনি ইতিপূর্বে নিশ্চয়ই অবগত হয়েছেন যে, করোনা মহামারীর এই দুর্যোগ মুহুর্তে গার্মেন্টস শিল্প রক্ষায় সরকার মালিকপক্ষকে বিশেষ প্রনোদনা প্যাকেজ প্রদান করেছে। করোনাকালীন সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গার্মেন্টস সেক্টরের সার্বিক উন্নয়নে ও মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের লক্ষ্যে নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করে চলেছেন গার্মেন্টস শ্রমিকরা।”

তিনি আরো বলেন, “গত ২৭ ডিসেম্বর ২০২০ আমরা গণমাধ্যমে জানতে পারলাম গার্মেন্টস মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ মৌখিকভাবে এবং বিকেএমইএ লিখিত ভাবে আপনার বরাবরে আগামী ২ বছর গার্মেন্টস শ্রমিকদের ৫% বেতন ইনক্রিমেন্ট বন্ধ রাখার জন্য চিঠি প্রেরণ করেছেন। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। গত বছরের মার্চ থেকে যখন করোনা ভাইরাস ঠেকাতে সারাদেশের সিংহভাগ প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয় তখন দেশের অর্থনীতি সচল রাখতে গার্মেন্টস শ্রমিকরার জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ৬৫% বেতনে কাজ করে চলেছেন, এমন কি শ্রমিকদের ঈদ বোনাসও কম দেওয়া হয়েছে। করোনাকালে মালিকরা যদি প্রনোদনা পান তাহলে শ্রমিকদেরও কমপক্ষে ২০% ঝুঁকি ভাতা প্রদান করতে হবে। অথচ মালিকরা এত সুযোগ সুবিধা পাওয়ার পরও আগামী দুই বছরের জন্য শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন ইনক্রিমেন্ট বন্ধের যে দাবী করেছেন তা সম্পূর্ণ অগ্রহণযোগ্য। মালিকরা যে শুধু মুনাফা বুঝেন, তাদের এ দাবীই তা প্রমাণ করে।”

জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন গার্মেন্টস মালিকদের ইনক্রিমেন্ট বন্ধের অন্যায্য প্রস্তাব বাতিল এবং করোনাকালে অর্থনীতি রক্ষাকারী যোদ্ধা হিসেবে গার্মেন্টস শ্রমিকরা যাতে ২০% ঝুঁকিভাতা পেতে পারে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সচিবের প্রতি অনুরোধ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আর নিউজ দেখুন