সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

প্রতিবেশীদের সাহায্যে ভারত মহাসাগরের দখলে চীন, বসে নেই দিল্লিও

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০
  • ৬৩ জন দেখেছেন

ভারত মহাসাগরে এশিয়ার পরাশক্তি চীন নিজেদের আধিপত্য বিস্তারের জন্য এরই মধ্যে শক্ত অবস্থান নিয়েছে। প্রতিবেশী তিন রাষ্ট্রের সমর্থন চীনের পক্ষে থাকলেও এক্ষেত্রে বসে নেই ভারতও।

বেইজিংকে উল্টো চাপে ফেলতে এবার পাল্টা ব্যবস্থা গ্রহণের পথে হাঁটছে নয়াদিল্লি। ভারতের কড়া জবাবের অংশ হিসেবে দক্ষিণ চীন মহাসাগরে দিল্লি নিয়ন্ত্রিত দ্বীপগুলোতে যে কোনো সময় ব্যাপক সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনা চলছে।

ভারতীয় মিডিয়া বলছে, মিয়ানমার, পাকিস্তান ও ইরানের বন্দরগুলোর সাহায্যে চীনা নৌবাহিনী ভারত মহাসাগরে আধিপত্যের জন্য অবস্থান নিয়েছে। যদিও এর পাল্টা জবাব হিসেবে ভারত তার গণ্ডির মধ্যে থাকা দক্ষিণ চীন সাগরে নৌ চলাচল চলাচলে বাধা দূর করতে পরিকল্পনা করছে। যা মূলত আঞ্চলিক ভূখণ্ডের মধ্যে থাকা দ্বীপগুলোতে দ্রুত অবকাঠামোগত উন্নয়নের কাজ করবে।

আরও পড়ুন : পাকিস্তানকে চারটি ভয়ঙ্কর যুদ্ধজাহাজ দিচ্ছে চীন, চাপে ভারত

সামরিক সূত্র জানিয়েছে, ভারত খোহাসা, উত্তর আন্দামানের শিবপুর ও নিকোবারে বিমানবাহিনীর পরিপূর্ণ যুদ্ধঘাঁটি তৈরি করবে। যার মাধ্যমে বঙ্গোপসাগর ও মালাক্কা প্রণালী এবং আরব সাগর থেকে আদেন উপসাগর পর্যন্ত উভয় এলাকার নিরাপত্তার জন্য লক্ষদ্বীপের আগাত্তি আকাশপথটি সামরিক অভিযানের জন্য উন্নত করা হবে।



ভারতের তিন বাহিনীর কমান্ডার বলেন, গুরুত্বপূর্ণ এই দুই দ্বীপের অঞ্চলগুলো ভারতের নতুন রণতরীর মতো কাজ করবে। কারণ নৌবাহিনী মূল ভূখণ্ড থেকে ওই অঞ্চলে পৌঁছতে অনেক সময় লাগে। উভয় দ্বীপের এই সমুদ্র পথ দিয়ে বিশ্বের অর্ধেকের বেশি বাণিজ্য চলমান রয়েছে। এটি একটি ব্যস্ততম সমুদ্র পথ।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

সামাজিক যোগাযোগে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আর নিউজ দেখুন
© All rights reserved 2015- 2020 thepeoplesnews24

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্যমন্ত্রনালয়ের নিয়ম মেনে নিবন্ধনের আবেদন কৃত।

Design & Developed By: Limon Kabir
freelancerzone