শনিবার, ২৩শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং, সকাল ৭:৫১
রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময়ঃ November, 7, 2019, 2:10 pm
  • 11 বার দেখা হয়েছে

রবিন খান সিংড়া( নাটোর) প্রতিনিধিঃ
নাটোরের সিংড়ায় দুই হাত নেই। ডান পা নেই। বাঁ পা রয়েছে, তা-ও আবার স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক ছোট। পায়ের আঙুলের ফাঁকে কলম রেখে জেডিসি পরীক্ষা দেয়া সেই কিশোর রাসেলের পাশে দাঁড়ালেন সিংড়ার ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিংড়া শোলাকুড়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা কেন্দ্র পরিদর্শনে এসে ইউএনও সুশান্ত কুমার মাহাতো প্রতিবন্ধী রাসেলের লেখাপড়ার প্রতি প্রবল আগ্রহ দেখে মুগ্ধ হন। এসময় নগদ অর্থ ও একটি হুইল চেয়ার প্রদানসহ তার লেখাপড়ার দায়িত্ব নেন। গৃহহীনদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় রাসেলের জন্য একটি গৃহ নির্মাণ করে দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন।

প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী রাসেল মৃধা সিংড়া পৌর শহরের শোলাকুড়া মহল্লার দিনমজুর আব্দুর রহিম মৃধার ছেলে। অভাব-অনটনের মাঝেও প্রতিবন্ধী রাসেল মৃধার লেখাপড়ার প্রতি আলাদা স্পৃহা দেখে তার দরিদ্র বাবা-মা হাল ছাড়েননি। তার উচ্চ শিক্ষার সেই স্বপ্ন আজ পূরণ হতে চলেছে।

সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, রাসেলের যে দুই হাত ও একটি পা নেই এটা কোন বাধা না, মনোবলটাই আসল। তার উচ্চ শিক্ষা চালিয়ে যেতে সবরকম সহযোগিতা করা হবে। আর এ উপজেলায় একটি শিক্ষা কল্যাণ ট্যাস্ট অচিরেই করা হবে। তাছাড়া প্রতিমন্ত্রী পলক মহোদয়ের পরামর্শক্রমে তার জন্য একটি দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ করে দেয়ারও প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসক শাহরিয়াজ মহোদয় তার লেখাপড়ার জন্য ২৫ হাজার টাকা বরাদ্দ করেছেন।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ পড়ুন