সোমবার, ১লা জুন, ২০২০ ইং, রাত ১:৪৪
রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময়ঃ নভেম্বর, ৬, ২০১৯, ১২:৪১ অপরাহ্ণ
  • 75 বার দেখা হয়েছে

নিউজ ডেস্ক:
বাংলাদেশের উন্নয়নের গতিকে ত্বরান্বিত করার জন্য অর্থের প্রয়োজন। আর সেই উন্নয়নের অংশীদার হিসেবে কাজ করছে বন্ধুরাষ্ট্র ভারত। যার কারণে গত ০৯ অক্টোবরে তিনটি ঋণ চুক্তির আওতায় ভারত ৭৩৬ কোটি ২০ লাখ ডলার প্রদানে চুক্তিবদ্ধ হয়।

তবে জানা গেছে, নয় বছরে তিনটি চুক্তির আওতায় ৭৩৬ কোটি ২০ লাখ ডলারের চুক্তি হলেও ছাড় হয়েছে মাত্র ৫৬ কোটি ৮৮ লাখ ডলার। প্রকল্প বাস্তবায়নের গতি তরান্বিত করতেই উক্ত ঋণ প্রকল্প বাস্তবায়ন চুক্তি সম্পাদিত হয়। যার মাধ্যমে ঋণের বাকি টাকা খুব শিগগির পাবে বাংলাদেশ।

জানা যায়, ভারতের সাথে তিনটি ঋণ চুক্তির আওতায় ৪৭টি প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। প্রথম ঋণচুক্তির আওতায় ৮৬ কোটি ২০ লাখ ডলার দিয়ে ১৫টি প্রকল্প নেওয়া হয়। এর মধ্যে নয় বছরে ছাড় হয়েছে ৫৩ কোটি ৬০ লাখ ডলার; ফলে প্রকল্পগুলোর বাস্তবায়ন অসম্পূর্ণ রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইআরডি এশিয়া উইংয়ের যুগ্ম সচিব শাহরিয়ার কাদের সিদ্দিকী বলেন, প্রথম ঋণচুক্তির শেষ না হওয়া প্রকল্পগুলোতে জমি অধিগ্রহণ ও বস্তি উচ্ছেদ নিয়ে জটিলতা ছিল। সেগুলোর সমাধান ইতিমধ্যে হয়েছে।

দ্বিতীয় ঋণচুক্তির আওতায় ২০০ কোটি ডলারের মধ্যে ৩ কোটি ২৮ লাখ ডলার ছাড় হয়েছে। সাড়ে তিন বছর আগের এ ঋণচুক্তির আওতায় নেওয়া ১৬টি প্রকল্পের একটিরও কাজ শুরু হয়নি।
তবে তৃতীয় ঋণচুক্তির আওতায় কোনও অর্থ ছাড় শুরু হয়নি। প্রায় দুই বছর আগে ৪৫০ কোটি ডলারের এ চুক্তির আওতায় গৃহীত ১৬ প্রকল্পের কোনোটির কাজ এখনও শুরু হয়নি।

তিনি আরো বলেন, এমন পরিস্থিতিতে ভারত থেকে নেয়া ঋণের বাকি অংশ ফেরত পেতে করা ঋণ প্রকল্প বাস্তবায়ন চুক্তি কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে। ঋণের অর্থ ছাড়তে দেরি করার কারণে প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না। উক্ত ঋণ প্রকল্প বাস্তবায়নের চুক্তি করার ফলে Line of Credit প্রতিশ্রুতি অর্থ ছাড়ে গতি আসতে পারে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ পড়ুন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪৭,১৫৩
সুস্থ
৯,৭৮১
মৃত্যু
৬৫০

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬,২২৫,৭৭৪
সুস্থ
২,৭৭৯,৪৮৮
মৃত্যু
৩৭২,৭৩৬