শুক্রবার, ৫ই জুন, ২০২০ ইং, সকাল ৯:৩৯
সর্বশেষ :
পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষ রোপনে উৎসাহিত করছেন মাহাবুব পলাশ গাইবান্ধায় করোনা ভাইরাসে নতুন করে ৬ জন আক্রান্ত পলাশবাড়ীতে উপজেলা পর্যায় বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা-সচেতনতা শীর্ষক প্রেসব্রিফিং ও সেমিনার ফুলছড়িতে সরিষা ফসলের কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত কাজিপুরে এস.এস.সি ফলাফলে শীর্ষস্থান অধিকারী মিম প্রকৌশলী হতে চায় মোহাম্মদ নাসিমের রোগমুক্তি কামনায় কাজিপুরের চালিতাডাঙ্গা ইউপি পরিষদের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল “জননেতা মোহাম্মদ নাসিম সুস্থ হয়ে খুব শীঘ্রই আমাদের মাঝে ফিরতে পারেন, মহান আল্লাহর দরবারে এই প্রার্থনা” করোনায় বিপাকে ইন্দুরকানীর ক্যাবল অপরারেটররা ইন্দুরকানীতে ছাত্রলীগের এক গ্রুপের হামলায় অপর গ্রুপের ১০ জন আহত সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়ন পরিষদে চার মাস হেঁটেও পায়নি জন্ম নিবন্ধন সনদ !
সংবাদ শিরোনামঃ
পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষ রোপনে উৎসাহিত করছেন মাহাবুব পলাশ গাইবান্ধায় করোনা ভাইরাসে নতুন করে ৬ জন আক্রান্ত পলাশবাড়ীতে উপজেলা পর্যায় বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা-সচেতনতা শীর্ষক প্রেসব্রিফিং ও সেমিনার ফুলছড়িতে সরিষা ফসলের কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত কাজিপুরে এস.এস.সি ফলাফলে শীর্ষস্থান অধিকারী মিম প্রকৌশলী হতে চায় মোহাম্মদ নাসিমের রোগমুক্তি কামনায় কাজিপুরের চালিতাডাঙ্গা ইউপি পরিষদের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল “জননেতা মোহাম্মদ নাসিম সুস্থ হয়ে খুব শীঘ্রই আমাদের মাঝে ফিরতে পারেন, মহান আল্লাহর দরবারে এই প্রার্থনা” করোনায় বিপাকে ইন্দুরকানীর ক্যাবল অপরারেটররা ইন্দুরকানীতে ছাত্রলীগের এক গ্রুপের হামলায় অপর গ্রুপের ১০ জন আহত সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়ন পরিষদে চার মাস হেঁটেও পায়নি জন্ম নিবন্ধন সনদ !
রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময়ঃ মে, ৩, ২০২০, ৬:৫২ পূর্বাহ্ণ
  • 116 বার দেখা হয়েছে

নাসিম আহমেদ রিয়াদ, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
কালের আবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে সিরাজগঞ্জের তালের পাতায়/নারিকেলের পাতায় মোড়ানো নিপুণ কারুকার্য খচিত বাবুই পাখির বাসা। পরিবেশ বিপর্যয়ের কারণে বাবুই পাখির বাসা অনেকটা বিলীন হতে চলেছে। অথচ আজ থেকে প্রায় ১৪-১৫ বছর আগেও গ্রাম-গঞ্জের মাঠ-ঘাটের তাল গাছে দেখা যেত এদের বাসা।

বাবুই পাখির বাসা শুধু শৈল্পিক নিদর্শনই নয়, মানুষকে স্বাবলম্বী হতে উৎসাহিত করতো। কবি রজনী কান্ত সেনের ভাষায়, ‘বাবুই পাখিরে ডাকি বলিছে চড়াই,/ কুঁড়েঘরে থেকে করো শিল্পের বড়াই।/ আমি থাকি মহাসুখে অট্টালিকার ’পরে,/ তুমি কত কষ্ট পাও রোদ, বৃষ্টি-ঝড়ে।’

সরেজমিনে জানা যায়, সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের গ্রাম-গঞ্জে এখন আর আগের মতো চোখে পড়ে না বাবুই পাখি ও তার তৈরি দৃষ্টিনন্দন ছোট্ট বাসা তৈরির নৈসর্গিক দৃশ্য। বাবুই পাখির নিখুঁত বুননে এ বাসা টেনেও ছেঁড়া কষ্টকর। প্রতিটি তালগাছে ৫০ থেকে ৬০টি বাসা তৈরি করতে সময় লাগে ১০-১২ দিন। খড়, কুটা, তালপাতা, ঝাউ ও কাশবন ও লতা-পাতা দিয়ে বাবুই পাখি উঁচু তালগাছে বাসা বাঁধে।

সেই বাসা দেখতে যেমন আকর্ষণীয়, তেমনি অনেক মজবুত। প্রবল ঝড়েও তাদের বাসা ভেঙে পড়ে না। পুরুষ বাবুই পাখি বাসা তৈরির পর সঙ্গী খুঁজতে যায় অন্য বাসায়। সঙ্গী পছন্দ হলে স্ত্রী বাবুইকে সাথী বানানোর জন্য পুরুষ বাবুই নিজেকে আকর্ষণীয় করতে খাল, বিল ও ডোবার পানিতে গোসল করে গাছের ডালে ডালে নেচে বেড়ায়।

চমৎকার বাসা বুনে বাস করায় এ পাখির পরিচিতি বিশ্বজোড়া। বাবুই পাখির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো- রাতের বেলায় ঘর আলোকিত করতে জোনাকি পোকা ধরে নিয়ে বাসায় রাখে এবং সকাল হলে ছেড়ে দেয়। প্রজনন সময় ছাড়া অন্য সময় পুরুষ ও স্ত্রী বাবুই পাখির গায়ে পিঠে তামাটে কালো বর্ণের দাগ হয়। নিচের দিকে কোন দাগ থাকে না। ঠোঁট পুরো মোসাকার ও লেজ চৌকা। তবে প্রজনন ঋতুতে পুরুষ পাখির রং হয় গাঢ় বাদামি। অন্য সময় পুরুষ ও স্ত্রী বাবুই পাখির পিঠের পালকের মতই বাদামি হয়।

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার তিয়রহাটী গ্রামের চাকুরীজীবী লিটন সরদার বলেন, ‘ছোটবেলায় দেখতাম রাস্তার দু’পাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে থাকা তালগাছগুলোর মধ্যে অনেক বাবুই পাখির বাসা ছিল। কিন্তু এখন বাবুই পাখির বাসা আর দেখা যায় না। বাবুই পাখির বাসাটি আজ হারিয়ে যেতে বসেছে। আমাদের পুরো এলাকাজুড়ে মাত্র একটি তালগাছে তারা বাসা বেঁধেছে। তাদের কিচিরমিচির শব্দে সকালবেলা আমাদের ঘুম ভাঙে।’

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ পড়ুন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৫৭,৫৬৩
সুস্থ
১২,১৬১
মৃত্যু
৭৮১

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬,৬৯৮,৬১৫
সুস্থ
৩,২৪৯,৪৫৭
মৃত্যু
৩৯৩,১৪২