বৃহস্পতিবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, সকাল ৭:০১
সর্বশেষ :
গাইবান্ধা-৩ আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন যারা গাইবান্ধা-৩ আসন উপ-নির্বাচনে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী স্মৃতির মনোনয়নপত্র জমা কাজিপুরে নিশ্চিন্তপুর ইউনিয়নে ভোট গ্রহণের তফসিল ঘোষণা কাজিপুরে আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কর্ণফুলী টানেলের সংযোগ সড়ক হবে চার লেন রায়গঞ্জে নিরাপদ সুশৃঙ্খল নিয়মিত অভিবাসন নিশ্চিতের জন্য প্রেসব্রিফিং সিরাজগঞ্জে ৫ সাংবাদিকের উপর হামলা শাহজাদপুর থানার ইন্সপেক্টর(তদন্ত) শহিদুল ইসলাম রায়গঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ সীমান্ত হত্যা বন্ধে সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন দুদক কর্মকর্তা ও সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে তিন প্রতারক গ্রেফতার
সংবাদ শিরোনামঃ
গাইবান্ধা-৩ আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন যারা গাইবান্ধা-৩ আসন উপ-নির্বাচনে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী স্মৃতির মনোনয়নপত্র জমা কাজিপুরে নিশ্চিন্তপুর ইউনিয়নে ভোট গ্রহণের তফসিল ঘোষণা কাজিপুরে আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত কর্ণফুলী টানেলের সংযোগ সড়ক হবে চার লেন রায়গঞ্জে নিরাপদ সুশৃঙ্খল নিয়মিত অভিবাসন নিশ্চিতের জন্য প্রেসব্রিফিং সিরাজগঞ্জে ৫ সাংবাদিকের উপর হামলা শাহজাদপুর থানার ইন্সপেক্টর(তদন্ত) শহিদুল ইসলাম রায়গঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ সীমান্ত হত্যা বন্ধে সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন দুদক কর্মকর্তা ও সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে তিন প্রতারক গ্রেফতার
রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময়ঃ ফেব্রুয়ারি, ৫, ২০২০, ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ
  • 37 বার দেখা হয়েছে

সোনার দোকান বা বড় কোনও জামা-কাপড়ের দোকান নয়। অতিসাধারণ এক ফুচকার স্টল, আর সেখানেই রয়েছে সিসি ক্যামেরা। অবিশ্বাস্য মনে হলেও এটাই সত্যি। আর এই ফুচকা বিক্রেতার দেখা মিলবে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ফলতার সহরারহাট বাজারে।বছর দুয়েক আগেও পরিস্থতি এমন ছিল না ফলতার বাসিন্দা ফুচকা বিক্রেতা দীপঙ্করের। কার্যত বেকার ছিলেন তিনি। কী করবেন তা বুঝে উঠতে পারছিলেন না দীপঙ্কর। এরপরই ফুচকা বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন। সেই মতো ব্যবসাও শুরু করে দেন।

ওই ব্যবসায়ীর কথায়, একদিন ফুচকার হিসেব নিয়ে ক্রেতার সঙ্গে জোর বচসায় জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। সেই ঘটনার পরও একাধিকবার ক্রেতাদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় তাঁর। এরপরই এই সমস্যা সমাধানের উপায় খুঁজতে শুরু করেন দীপঙ্কর। তখনই তাঁর মাথায় আসে সিসিটিভির কথা। যেমন ভাবা তেমন কাজ। সঙ্গে সঙ্গে নিজের ফুচকার গাড়িতে সিসি ক্যামেরা লাগান ওই ফুচকা বিক্রেতা। এরপর থেকেই খদ্দেরের ভিড় লেগেই রয়েছে দীপঙ্করের দোকানে।

কিন্তু খদ্দেরের ভিড়ের কারণ কি সত্যিই সিসি ক্যামেরা? এই প্রশ্নের উত্তরে এক বাক্যে ‘হ্যাঁ’ বলেছেন সকলেই। ফুচকা প্রেমীদের কথায়, ফুচকা দোকানে সিসিটিভির ব্যবস্থা থাকায় তাঁরা বেশ খুশি। বিষয়টা তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করেন তাঁরা। ফুচকা মুখে পুরতে পুরতে টুক করে সিসিটিভিতে চোখ পড়তেই যখনই নিজেদের মুখ দেখতে পান, তখন নাকি নিজেকে ভিআইপির থেকে কিছু কম মনে হয় না! তাছাড়া সিসিটিভি লাগানোর পর হিসেবে গরমিলের কোনও প্রশ্নই নেই। তাই সবমিলিয়ে সিসিটিভি লাগানোর পর বিক্রেতা ও ক্রেতা দু’তরফই খুশি।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ পড়ুন