মঙ্গলবার, ০৪ অগাস্ট ২০২০, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন

শাশুড়িকে খুশি রাখার কয়েকটি ‘টেকনিক’ জানালেন আজহারী

Reporter Name
  • প্রকাশের সময়: সোমবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০২০
  • ৭৭ জন দেখেছেন

ডেস্ক নিউজ:
অধিকাংশ পরিবারেই বর্তমানে বৌ-শাশুড়ি দ্বন্দ্ব একটি প্রধান সমস্যা হয়ে দাড়িয়েছে। আর এই দ্বন্দ্ব নিরসনে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বনের কথা জানিয়েছেন এই সময়ের আলোচিত ইসলামিক বক্তা মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী। সম্প্রতি একটি ওয়াজ মাহফিলে তিনি বলেন, বৌ-মায়েরা শাশুড়িকে নিজের মায়ের জায়গায় রাখবেন। কারণ, আপনি নিজের বাড়ি ছেড়ে নতুন বাড়িতে এসেছেন, আর এটাইতো আপনার বাড়ি। নতুন বাড়িতে এসে নতুন মা পেয়েছেন, এটাওতো আপনার মা। উনাকে মায়ের জায়গায় বসাতে আপনার সমস্যা কোথায়?

এসময় বৌদের উদ্দেশ্যে মিজানুর রহমান আজহারী বলেন, খেয়াল রাখবেন, আপনিও একদিন শাশুড়ি হবেন। আপনি আপনার শাশুড়ির সঙ্গে যে আচরণ করছেন, শেষ বয়সে আপনার ছেলের বৌ-ও একই আচরণ আপনাকে ফিরিয়ে দেবে। কারণ, প্রকৃতির একটা বিচার আছে, ওটা শেষ বিচার; প্রকৃতির খেলা বড় খেলা। অল্পকিছু ‘টেকনিক’ অবলম্বন করলেই শাশুড়ির মন জয় করা যায় উল্লেখ করে বর্তমান সময়ের আলোচিত এই ইসলামিক বক্তা বলেন, শাশুড়িরা আসলে বেশি কিছু চায় না।

‘টেকনিক’ এর ব্যাখা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, মাঝেমধ্যে শাশুড়ির মাথায় একটু তেল দিয়ে দিবেন, চুল আঁচড়িয়ে দিবেন, উনার প্রেশারটা একটু মেপে দিবেন। এছাড়া অসুখ থাকলে ওষুধ খেলো কি না তা মনে করিয়ে দিবেন। আজহারী বলেন, মাঝেমধ্যে শাশুড়ির পছন্দ করা খাবার রান্না করে দিবেন, যে বক্তার ওয়াজ শুনতে পছন্দ করে সেই বক্তার ওয়াজ ডাউনলোড করে দিবেন; কারণ বয়স্ক নারীরা ওয়াজ শুনতে খুব পছন্দ করে। এছাড়া বাইরে বের হলে জিজ্ঞেস করবেন, আপনার কিছু লাগবে কি না?

এসময় শাশুড়িদের উদ্দেশ্যেও বিভিন্ন পরামর্শ দেন মিজানুর রহমান আজহারী। তিনি বলেন, অনেক শাশুড়ি আছেন, যারা পান থেকে চুন খসলেই বৌ-মাদের সঙ্গে রেগে যান, পদে-পদে তাদের ভুল ধরেন। এটা করবেন না। বৌ-মাদের উপর অত্যাচার করবেন না, তাকে ভালবাসুন। কারণ, সেতো নতুন। আপনার অনেক অভিজ্ঞতা। আপনার মত অভিজ্ঞতা হতে তার সময় লাগবে।

না বুঝে বৌ-মাকে অনেক শাশুড়িই বদদোয়া দেয় উল্লেখ করে আজহারী বলেন, এতে নিজের পরিবারেরই ক্ষতি, আপন নাতি-নাতনিরই ক্ষতি। তাই এটা করবেন না। শাশুড়িদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, বৌ-মাদেরকে কষ্ট দিবেন না। মনে রাখবেন, আপনার নিজের মেয়েটাও আরেক বাড়িতে বৌ হয়ে যাবে। আপনি নিজের বৌ-মাকে কষ্ট দিলে আপনার মেয়েকেও কষ্ট পেতে হতে পারে, যা আপনি সহ্য করতে পারবেন না। এজন্য বৌ-মাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করবেন না। তিনি আরও বলেন, দোষ ছাড়া মানুষ নাই। আমরা সবাই যেন সবাইকে ভালবাসি, আমরা যেন একে অন্যের দোষ না খুঁজি।

সামাজিক যোগাযোগে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আর নিউজ দেখুন
© All rights reserved 2015- 2020 thepeoplesnews24

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্যমন্ত্রনালয়ের নিয়ম মেনে নিবন্ধনের আবেদন কৃত।

Design & Developed By: Limon Kabir
freelancerzone