বৃহস্পতিবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং, রাত ১০:১৮
সর্বশেষ :
সংবাদ শিরোনামঃ
রিপোর্টারের নাম
  • আপডেটের সময়ঃ জানুয়ারি, ১৩, ২০২০, ৯:৪৪ পূর্বাহ্ণ
  • 50 বার দেখা হয়েছে

লায়ন এয়ার ফ্লাইট ৬১০ নামক বিমানটি গত ২৯ অক্টোবর ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তার কাছে টেক-অফের কিছুক্ষণ পরই সাগরে আছড়ে পড়ে। ওই বিমানের কোনো আরোহীই বেঁচে নেই। মৃতদের এই তালিকায় ছিলেন ইন্দোনেশিয়ার রিও নান্দা প্রাতামা যিনি ইনতান সিয়েরির হবু স্বামী ছিলেন।

জানা যায়, গত বছরের নভেম্বরের ১১ তারিখ বিয়ে হওয়ার কথা ছিল তাদের কিন্তু ভাগ্য সহায় হলনা। বিয়ের মাত্র কয়েকদিন আগে এক বিমান দুর্ঘটনায় মারা যান প্রাতামা। এরপর শোকাতুর হয়ে পড়েন তার বাগদত্তা সিয়ারি। এরপরও নির্ধারিত ১১ নভেম্বর বিয়ের সাদা পোশাক ও অলংকার পড়ে হাতে তুলে নেন ফুলের তোড়া। হবু স্বামীর মৃত্যু হলেও তিনি সাজেন নববধূর বেশে। কিন্তু কেন?

কারণ হিসেবে সিয়ারি জানান, এটাই ছিল প্রাতামার শেষ ইচ্ছা। তাই বিয়ের নির্ধারিত দিনে সেজেগুজে ছবি তোলেন সিয়ারি। ইনস্টাগ্রামে সেই ছবি পোষ্টও করেন তিনি। ক্যাপশনে সিয়ারি লেখেন, ”যদিও আমার শোক প্রকাশের কোনো ভাষা নেই, তবুও তোমার জন্য আমার মুখে হাসি ধরে রাখতে হবে। আমার দুঃখের সীমা নেই কিন্তু আমার শক্ত থাকতে হবে, যেমনটা তুমি হতে বলেছিলে।’ দেখা যায়, তিনি ও তার বাগদত্ত মিলে যে বিয়ের গাউনটি কিনেছিলেন, তা পরে ছবি তুলেছেন।

পারমানার সহকর্মী ইফান দেভিয়ান্দ্রি জানান, বিমানে ওঠার আগে সিয়ারিকে মজা করে বলেছিলেন তার বাগদত্ত প্রাতামা। তিনি বলেছিলেন, প্রাতামা ফিরে না এলেও যেন সিয়ারি বিয়ের ফটোশ্যুট করেন পরিকল্পনা মতোই। ওই ফ্লাইট থেকে আর বেঁচে ফেরেননি প্রাতামা।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ পড়ুন