আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আপিল ডিবিশনের রায়ে ৩৫ উর্দ্ধো নিবন্ধনধারীগণ আনন্দিত

খবরটি নিচের যেকোন মাধ্যমে শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
গত বছর ১২ জুন ২০১৮ইং তারিখে প্রকাশিত হয় শিক্ষা নীতিমালা ২০১৮ যার ১১.৬ ধারাতে বলা হয়েছে শিক্ষক নিয়োগের সর্বোচ্চ বয়স হবে ৩৫ বছর। পক্ষান্তরে উপজেলা কোটা বাতিল করতে নিয়োগ বঞ্চিত শিক্ষকগণ”নিবন্ধিত শিক্ষকদের অধিকার আদায় কমিটি” গঠন করেন যারা আহŸায়ক ও সমন্বয়কারী ছিলেন এস এম আমজাদ হোসেন। এস এম আমজাদ হোসেন বলেন, ৫ জানুয়ারী ২০২০ইং রবিবার গত ২২ মে ২০১৯ইং তারিখে ২৫ নং কোর্টে জাজমেন্টকৃত রিটটির জাজমেন্টকে চ্যালেন্জ করে মহামান্য সুপ্রিমকোর্টের আপিল ডিবশনে চেম্বার কোর্টে শুনানি ছিলো। শুনানি শেষে মহামান্য বিচারপতি ৩৫ উর্দ্ধো নিয়োগ বঞ্চিতদের রায় যৌক্তিক মনে করেন এবং পূর্ণ শুনানির জন্য ফুল কোর্টে প্রেরণ করেন এবং সিপি তৈরি করার জন্য ১০ফেব্রুয়ারী২০২০ইং পর্যন্ত সময় বেধে দেন সরকার পক্ষকে। আগামী ১০ফেব্রুয়ারী ২০২০ইং তারিখে ফুল কোর্টে হেয়ারিং হবে। ফলে সরকার পক্ষ স্ট্রে করতে ব্যর্থ হন। এতে ৩৫ উর্দ্ধো নিয়োগ বঞ্চিত নিবন্ধিত শিক্ষকদের নিয়োগের পথ সুগম হলো। উল্লেখ্য যে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কতৃপক্ষ ২০০৫ সালে গঠিত হবার পর থেকে শিক্ষক নিয়োগে সচ্ছতা আনয়নে ব্যর্থ হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এনটিআরসিএ বার বার হ-য-ব-র-ল নিয়ম ও নীতিমালা করে বঞ্চিত করছেন ৩৫ উর্দ্ধো নিবন্ধিত শিক্ষকগণকে।

নিয়োগ বঞ্চিত নিবন্ধিত শিক্ষক গণ তার প্রতিবাদে গঠন করেন “নিবন্ধিত শিক্ষকদের অধিকার আদায় কমিটি” যার আহবায়ক ও সমন্বয়কারী জনাব এস এম আমজাদ হোসেন সারা দেশের নিবদ্ধিত শিক্ষকদের নিয়ে আন্দোলন করেন এবং প্রতিকারের জন্য মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট শাখায় একে একে ১৬৬টি রিট দাখিল করেন। ৭টি নির্দেশনা দিয়ে গত ১৪/১২/২০১৭ইং তারিখে রায় হয়। উক্ত রায়ে সনদের মেয়াদ সনদধারীদের নিয়োগ পর্যন্ত বিদ্যমান থাকার কথা বললেও এনটিআরসি আবারো সনদধারীদের নিয়োগের বয়স ৩৫ বছর লিমিট করে গন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন গত ১৯/১২/২০১৮ইং তারিখে। এতে ৩৫ বছর উর্দ্ধো নিবন্ধনধারীগণ আবেদন করতে না পেরে ” ৩৫ উর্দ্ধো নিয়োগ বঞ্চিত নিবন্ধিত শিক্ষক কেন্দ্রীয় ফোরাম ” গঠন করে সভাপতি এস এম আমজাদ হোসেন সাহেবের নেতৃত্বে আইনি লড়াইয়ে ঝাপিয়ে পড়েন ৩৫ বছর উর্দ্ধো নিবন্ধন ধারীগণ। গত ০২/০১/২০১৯ ইং তারিখে মহামান্য হাইকোর্ট ৩৫ বছর উর্দ্ধোদের আবেদন গ্রহনের অর্ডার দিলেও এনটিআরসিএ তা গ্রহণ না করে উক্ত অর্ডারকে চ্যালেন্জ করে আপিল করেন। আপিল বিভাগে ও মহামান্য প্রধানবিচারপতির কোর্টে এনটিআরসিএ বারবার পরাজিত হয়েও ৩৫+ দের বঞ্চিত করেছেন।সর্বশেষে গত ২২/৫/২০১৯ইং তারিখে ২৫ নং কোর্টের বিচারপতিদ্বয় ৩৫বছরের বেশি বয়সী (যারা ১২/৬/২০১৮ইং তারিখের পূর্বে সনদ অর্জন করেছেন) নিবন্ধন ধারীগণের সনদ বৈধ করেন এবং জাতীয় মেধাতালিকা মোতাবেক নিয়োগ দিতে নির্দেশ দেন। উক্ত রায়কে চ্যালেন্জ করে এনটিআরসিএ আপিল করেন এবং চেম্বার কোর্টে আপিল শুনানিন্তে রায়কে সঠিক ও বৈধ হিসেবে গন্য করে অধিকতর শুনানির জন্য সিপি তৈরি করে ফুল কোর্টে আগামী ১০/২/২০২০ইং তারিখে শুনানি করতে নির্দেশ দেন। এনটিআরসিএ উক্ত আপিলে স্ট্রে করতে না পেরে আবারো পরাজিত হন এবং ৩৫ উর্দ্ধোদের নিয়োগের পথ সুগম হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আর নিউজ দেখুন