1. admin@thepeoplesnews24.com : admin :
  2. shohel.jugantor@gmail.com : alamin hosen : alamin hosen
সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি - Thepeoples News 24
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১০:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
নাটোরের সিংড়ায় বিদ্যুৎ-তেল ছাড়াই সেচপাম্প তৈরী করা দেখতে উৎসুক জনতার ভীড় কাজিপুরে উপজেলা পরিষদের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত কোরবানির বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় জনসচেতনতা তৈরিতে ডিসি ইউএনওদের নির্দেশ দক্ষিণাঞ্চলে বইছে নব জাগরণের ঢেউ পদ্মা সেতুর জন্য সরকারের দেওয়া ঋণ শোধ হবে ৩৫ বছরে পদ্মা সেতুতে নিরাপত্তা জোরদার, জলেস্থলে বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা শিল্পায়নকে ত্বরান্বিত করে: প্রধানমন্ত্রী নাটোরে বসুন্ধরা গ্রুপের কিং র্ব্যান্ড সিমেন্টের হালখাতা অনুষ্ঠিত নতুন সব ব্র্যান্ডের সাথে এবারে শপিংয়ের মজা আরো জমবে দারাজে সেরা ব্র্যান্ড, দূর্দান্ত প্রোডাক্ট আর আকর্ষণীয় ডিস্কাউন্ট নিয়ে উপভোগ করুন কেনাকাটার সেরা অভিজ্ঞতা! ইসিকে বাংলাদেশ ন্যাপ : ইভিএম’র উপর জনগণের কোন আস্থা নাই

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

সিলেট সংবাদদাতা
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২
  • ৬০ বার দেখা হয়েছে

সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে। ঘনঘন হচ্ছে বৃষ্টি বাড়ছে বন্যার পানি। ঘনঘন অঝোর ধারার বৃষ্টি ও বন্যার পানি বেড়ে যাওয়ায় আতঙ্কে সময় পার করছেন উপজেলা বেশ কিছু গ্রামের মানুষ। নির্ঘুম অবস্থায় রাত কাটানোর ফলে অনেকেই অসুস্থতা বোধ করছেন।

গোলাপগঞ্জ উপজেলার বুক চিরে বয়ে যাওয়া সুরমা কুশিয়ারার পানি বৃদ্ধি পাওয়াতে উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে কম বেশি সব ক’টি ইউনিয়ন বন্যায় আক্রান্ত। বিশেষ করে বাঘা, উত্তর বাদেপাশা, ঢাকাদক্ষিণ এবং শরীফগঞ্জের অবস্থা খুবই শোচনীয়। ঢাকাদক্ষিণ সদরের বুক চিরে বয়ে গিয়েছিল কাগেশ্বরী নদী কিন্তু দখলদারদের কারণে কাগেশ্বরী নদী প্রায় বিলীন হওয়াতে শহর জোড়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়, যার ফলে সপ্তাহখানিক সময় থেকে যানবাহন চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে।

বর্তমানে পানি আরো বৃদ্ধি পাওয়াতে শহরের প্রত্যেকটি ঘরে ঢুকেছে বানের পানি। বাঘা ইউনিয়নের মানুষ পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। এখলাছপুর, জালালনগর, লাল নগর, তুড়ুখ ভাগ, রুস্তমপুর, কান্দিগাও সহ প্রায় ১৮টি গ্রাম বন্যায় আক্রান্ত।

ইতোমধ্যে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এলাকা পরিদর্শন করেছেন। উত্তর বাদেপাশা ইউনিয়নের আমকোনা, মুল্লারকোন, ছয়ঘরী, কেউটকোনা, ভরাউটসহ বেশ ক’টি গ্রামের মানুষ পানিবন্দি রয়েছেন। শরীফগঞ্জ ইউনিয়নের ইসলামপুর, নুরজাহানপুর, কালিকৃষ্ণপুর, রাংজিয়ল, খাটকাই বাদেপাশাসহ প্রায় ১২টি গ্রামের মানুষ পানিবন্দী রয়েছেন। এ ছাড়া বুধবারীবাজার, আমুড়া, ভাদেশ্বর এবং ফুলবাড়ি ইউনিয়নে গতরাতে ৮/১০টি গ্রাম নতুন ভাবে আক্রান্ত হয়েছে।

ইতোমধ্যে উপজলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যন নাজিরা বেগম শিলা, নির্বাহী অফিসার গোলাম ফারুক এলাকা পরিদর্শন করে প্রতিটি ইউনিয়নে বন্যাদুর্গত মানুষের জন্য ত্রান বরাদ্দের ঘোষনা দিয়েছেন। বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে বন্যার্তরা শঙ্কা ও ভীতি নিয়ে রাত কাটাচ্ছেন।

এদিকে গোলাপগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিস থেকে জানানো হচ্ছে বন্যার পানি আর বৃদ্ধি পেলে বাঘা এবং শরীফগঞ্জ ইউনিয়নের বেশ কিছু গ্রামে বিদ্যুতের সংযোগ বন্ধ করে দেয়া হবে।

টিপিএন২৪- রাব্বি হাসান হৃদয়

এই পোস্ট টি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
©২০১৫-২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Customized BY Limon Kabir