1. admin@thepeoplesnews24.com : admin :
  2. shohel.jugantor@gmail.com : alamin hosen : alamin hosen
শ্বশুরবাড়ির ইফতারি না পেয়ে বউকে তালাক! - Thepeoples News 24
রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
বেলকুচি উপজেলার তৃনমুল নেতাকর্মীদের আশ্বাস ও নারী নেতৃত্বের অনন্যা বেগম আশানুর বিশ্বাস : দীর্ঘ দশ বছর পর বেলকুচি উপজেলা আ:লীগের সম্মেলন : তৃনমুল নেতারা চায় কর্মীবান্ধব নেতা গুরুদাসপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পর ৩৬ নারী পলা সলাই মশিন গ্যালাক্সি এ৭২ ও গ্যালাক্সি এ০৩ কোর স্মার্টফোনে আকর্ষণীয় ক্যাশব্যাক ও ছাড় দি”েছ স্যামসাং বীরগঞ্জে ইব্রাহীম মেমোরিয়াল শিক্ষা নিকেতনে বার্ষিক মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রস্তাব অযৌক্তিক ও অগ্রহনযোগ্য : বাংলাদেশ ন্যাপ সরকার পতনের লড়াইয়ে শফিউল আলম প্রধান অনুপ্রেরনার উৎস :লুৎফর রহমান সলঙ্গায় বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু পাকেরহাটে পপুলার ডেন্টাল কেয়ার এর উদ্বোধন বড়াইগ্রাম হাঁসের খামারে বিদ্যুৎপৃষ্টে নারীর মৃত্যু

শ্বশুরবাড়ির ইফতারি না পেয়ে বউকে তালাক!

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ২২ এপ্রিল, ২০২২
  • ৪৩ বার দেখা হয়েছে

সিলেটের জকিগঞ্জের কালিগঞ্জে শ্বশুরবাড়ি থেকে রমজান মাসে ইফতারি না পেয়ে নবজাতকসহ বউ তালাকের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার রাতে উপজেলার মানিকপুর ইউপির বাল্লাগ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মানিকপুর ইউপির বাল্লা গ্রামের মৃত বাবুল মিয়ার ছেলে জাকারিয়া আহমদ শ্বশুরবাড়ি থেকে ইফতারি না পেয়ে নবজাতকসহ বউকে তালাক দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে জাকারিয়ার বিরুদ্ধে। অমানবিক এমন কান্ডে পুরো উপজেলা জুড়ে বির্তক চলছে।

ঘটনাটি চরম অমানবিক বলে অনেকে মন্তব্য করেছেন।
মানিকপুর ইউপির ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল কাদির বলেন, ঘটনাটি নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার সকালে জাকারিয়া আহমদের সঙ্গে কথা বলেছেন এবং ঘটনার বিস্তারিত জানতে ইউপি কার্যালয়ে নিয়ে এসেছিলেন।

জাকারিয়া প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে, পারিবারিক কলহের জেরধরে তালাকের ঘটনা ঘটেছে। বেশ কয়েকদিন থেকে সংসারে নানা বিষয় নিয়ে কলহ চলছে।


পারিবারিক মতবিরোধে তালাক দিয়েছেন স্ত্রী। শ্বশুরবাড়ির লোকজন এখন আসল ঘটনাকে আড়াল করে ‘ইফতারি না পেয়ে তালাক হয়েছে’ বলে রটনা করছেন।
ইউপি সদস্য আরও জানিয়েছেন, তারাবীর নামাজের পর বিষয়টি নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যানসহ বৈঠকে বসবেন এবং সমাধানের চেষ্টা করবেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুমী আক্তার জানান, ঘটনাটি তিনি জানেন না।

যদি এ রকম অমানবিক ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে ওই মহিলা পারিবারিক আদালতে বিচার প্রার্থী হোক। স্থানীয়ভাবে জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ বিষয়টি সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করা উচিত। মুখে তালাক বললেই শুধু তালাক হয় না। সমাজের সকল মানুষ সচেতন হতে হবে। এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ করলে ব্যবস্থা নেবেন।

এই পোস্ট টি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
©২০১৫-২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Customized BY Limon Kabir