সীমান্তে ‘বাংলাদেশি হত্যা’ খতিয়ে দেখা হচ্ছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

০৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯   |   thepeoplesnews24

ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক:

ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে চলতি বছরের শুরুতেই বেসামরিক বাংলাদেশি হত্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ বছরের জানুয়ারিতেই ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে অন্তত ৭ বাংলাদেশি প্রাণ হারিয়েছেন। আর চলতি ফেব্রুয়ারিতে নিহত হয়েছেন আরও দুই বাংলাদেশি।

ভারতের সঙ্গে সীমান্ত হত্যা বন্ধের বিষয়ে কথা থাকলেও হঠাৎ কেন বেড়েছে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।  

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের কথা ছিল- সীমান্তে হত্যা ‘জিরো’তে নামিয়ে আনা হবে। দুই বছর তা বন্ধও ছিল। হঠাৎ করে কেন এটা বেড়ে গেল তা বিজিবি খতিয়ে দেখছে।  

উচ্চ পর্যায়ের কমিটি করে এটা পর্যালোচনা করা হবে বলে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রয়োজনে দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মহাপরিচালকদ্বয়ের মধ্যে বৈঠক হবে। তবে এটা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। এখন যারা সীমান্তে আছেন, তারা নিয়মিত বৈঠক করছেন। 

মিয়ানমার সীমান্তে নতুন করে অস্থিরতা সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, বিজিবি সতর্ক আছে। প্রয়োজনে আরও সীমান্তরক্ষী নিয়োগ দেওয়া হবে। তবে এ সীমান্ত অনেক দুর্গম।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সমস্ত জেলায় কারাগারের ভেতরে দীর্ঘদিন জেলখাটা কোনো কয়েদি অচল বা অক্ষম হয়ে গেলে তাদের চিহ্নিত করে মুক্তি দেওয়ার কথা ভাবছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কারাগার বিভাগ থেকে এই কাজটি করা হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, শুধু জাহালম নয়, তার মতো আর কোনো মানুষ জেলখানার অভ্যন্তরে আছে কি না তা খতিয়ে দেখতে কারাগারগুলোতে একটি সংস্থা কাজ করছে। এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটলে সরকার তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে। 

তিনি আরও বলেন, নিরাপরাধ জাহালমের জেলখাটার বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে অবশ্যই দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

 






নামাজের সময়সূচি

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯
ফজর ৪:২৬
জোহর ১১:৫৬
আসর ৪:৪১
মাগরিব ৬:০৯
ইশা ৭:২০
সূর্যাস্ত : ৬:০৯সূর্যোদয় : ৫:৪৩