কামারখন্দে আনসার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ

১০ জানুয়ারী, ২০১৯   |   thepeoplesnews24

ফাইল ছবি


আরিফ হোসেন:
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিরাজগঞ্জে কামারখন্দ উপজেলা আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের কাছ থেকে উৎকোচ নিয়ে দায়িত্ব (ডিউটি) দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর মূলে রয়েছেন উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা দুলাল চন্দ্র মাহাতো। নির্বাচনে আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের দায়িত্ব দিতে প্রায় ৩লক্ষ টাকার ঘুষ বাণিজ্য হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।  
নির্বাচনী কেন্দ্রে দায়িত্ব পেতে সদস্যদের কাছ থেকে অগ্রিম ৫০০ থেকে ৭০০ টাকা পর্যন্ত প্রতিটি ইউনিয়ন দলনেতার মাধ্যমে আদায় করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।  
উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে ৪৭টি নির্বাচনী কেন্দ্র। প্রতিটি কেন্দ্রে একজন পিসি, একজন এপিসি, ছয়জন পুরুষ, চারজন নারীসহ ১২ জন আনসার-ভিডিপি সদস্য দায়িত্বে ছিলেন। সে হিসাবে উপজেলায় মোট আনসার ও ভিডিপি সদস্য দায়িত্ব পালন করেছেন ৫৬৪ জন। গত ২৬ থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় দিন নির্বাচনী দায়িত্ব পালন করেন তারা।  
কামারখন্দ উপজেলার ভারপ্রাপ্ত আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা দুলাল চন্দ্র মাহাতো অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কোনো সদস্যদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার ঘটনা ঘটেনি। যদি কেউ টাকা নিয়ে থাকে তার বিরুদ্ধে লেখেন। আমার উপজেলায় নির্বাচনী ডিউটি দিতে ইউনিয়ন দলনেতা টাকা নিলে সেই দায়ভার আমি নিব কেন? আর আপনারা সাংবাদিক নির্বাচন হয়ে যাওয়ার পরে আসলেন কেন? যখন অভিযোগ পেলেন তখন আসতেন। ছয় দিনে পিসি ও এপিসিরা সর্বমোট ৫ হাজার সাত টাকা এবং সদস্যরা পেয়েছেন ৪ হাজার ৫৮২ টাকা করে। 
কামারখন্দ উপজেলার ভুক্তভোগী রাকিবুল ইসলাম বলেন, ডিউটি নিতে ৫০০ টাকা দিয়ে ডিউটি নিতে হয়েছে এ টাকা আমি ঝাঐল ইউনিয়নের দলনেতাকে দিয়েছি। 
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বলেন, টাকা না দিলে দায়িত্ব (ডিউটি) দেওয়া হয় না এবং টাকা নেওয়ার বিষয়ে কাউকে বলতে নিষেধ করেন দলনেতারা, যদি টাকা নেওয়ার বিষয় জানাজানি হয় তাহলে পরবর্তি সময়ে তাদের ডিউটি দিবে না এটা একান্ত গোপন বিষয়।

 






নামাজের সময়সূচি

রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৯
ফজর ৪:২৬
জোহর ১১:৫৬
আসর ৪:৪১
মাগরিব ৬:০৯
ইশা ৭:২০
সূর্যাস্ত : ৬:০৯সূর্যোদয় : ৫:৪৩