গ্রামীণ নারীদের অবদানের সঠিক মূল্যায়ন করতে হবে

০৯ অক্টোবর, ২০১৮   |   thepeoplesnews24

ছবি প্রতিনিধি :

শাহরিয়ার আমিন,বাকৃবি প্রতিনিধি :

‘রাজনীতি, কৃষি, অর্থনীতি, গবেষণা থেকে শুরু করে বর্তমানে প্রতিটি ক্ষেত্রে মেধার স্বাক্ষর রেখে চলছে নারীরা। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নারীদের অংশগ্রহণে দৃশ্যপট পাল্টে যাচ্ছে, ত্বরান্বিত হচ্ছে জাতীয় উন্নয়ন। কিন্তু এখনও গ্রামে নারীদের কাজের তেমন একটা মূল্যায়ণ করা হয় না। গ্রামীণ নারীদের অবদানের সঠিক মূল্যমান নির্ণয় করলে দেশের জিডিপির প্রবৃদ্ধি কয়েক শতাংশ বেড়ে যেত। ’

সোমবার বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষ্যে ‘কৃষিতে গ্রামীন নারীদের অবদানের স্বীকৃতি’ শীর্ষক তারুণ্যের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলী আকবর।

আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষ্যে বিকাল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন মিলনায়তনে তারুণ্যের সমাবেশ এবং মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (বাকৃবিসাস) যৌথভাবে অনুষ্ঠানটির আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক সংগঠন ত্রিভূজ কৃষিতে গ্রামীন নারীদের অবদানকে নাচ, গান এবং নাটকের মাধ্যমে তুলে ধরেন ।

বাকৃবিসাসের সভাপতি শাহীদুজ্জামান সাগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আলী আকবর। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গনতান্ত্রিক শিক্ষক ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. লুৎফুল হাসান, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম।

অনুষ্ঠানে মূল বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষিতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহফুজা বেগম এবং মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কৃষি অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. ইসমত আরা বেগম। কৃষিতে নারীদের অবদান নিয়ে একটি ডকুমেন্টারি উপস্থাপন করেন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের জেন্ডার এডভাইসর বনশ্রী মিত্র নিয়োগী। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৪ শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।